শীতে শুষ্ক চুলের যত্ন নেওয়ার ৬ হাইড্রেটিং হেয়ার মাস্ক

শীতকালে আর্দ্রতা হারায় চুল, ত্বক সব কিছুই। ফলে চেহারার ঔজ্জ্বল্য কমে গিয়ে শুষ্ক ভাব আস। চুলের যত্নে এই সময় নিয়মিত হাইড্রেটিং মাস্ক লাগানো প্রয়োজন। জেনে নিন এমনই ৬ হাইড্রেটিং মাস্ক।

নারকেল তেল চুল হাইড্রেটেড রাখতে সবচেয়ে কার্যকরী। বেশি খাটতে না চাইলে নারকেল তেল হালকা গরম করে নিয়মিত মাথায় মাসাজ করুন।

২ টা ডিমের কুসুমের সঙ্গে অর্ধেক অ্যাভোকাডোর ক্কাথ মিশিয়ে নিন। শুকনো বা হালকা ভেজা চুলে এই মাস্ক লাগিয়ে রাখুন ২০ মিনিট। হালকা গরম জল ধুয়ে ফেলুন।

১ কাপ দই, ১ চা চামচ মধু ও ১ চা চামচ অ্যাপল সিডার ভিনিগার মিশিয়ে মাস্ক তৈরি করুন। চুলের গোড়া থেকে ডগা পর্যন্ত মাসাজ করুন এই মাস্ক। ১৫ মিনিট রেখে হালকা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

১টা পাকা অ্যাভোকাডো, ১/৪ কাপ দুধ ও ১ টেবল চামচ অলিভ অয়েল একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। চুল ও স্ক্যাল্পে মাসাজ করুন। শাওয়ার ক্যাপ পরে থাকুন ১৫ মিনিট। হালকা গরম জলে চুল ধুয়ে ফেলুন।

১টা বা দুটো ডিমের সঙ্গে ১টা লেবুর রস, ১ কাপ দুধ, ২ টেবল চামচ অলিভ অয়েল নিন। যদি তৈলাক্ত চুল হয় তা হলে শুধু ডিমের সাদা অংশ নিন, শুষ্ক চুল হলে শুধু কুসুম, নর্ম্যাল হলে পুরো ডিমের সঙ্গে বাকি উপকরণ মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণ স্ক্যাল্পে মাসাজ করুন ১৫ মিনিট। শাওয়ার ক্যাপ পরে থাকুন। শুকিয়ে গেলে হালকা গরম জলে ধুয়ে ফেলুন।

একটা বা দুটো পাকা কলা, ১ চা চামচ নারকেল তেল, ১ চা চামচ মধু ও ১ টেবল চামচ অলিভ অয়েল মিশিয়ে মাস্ক তৈরি করুন। পুরো চুলে এই মাস্ক লাগিয়ে রাখুন ৫ মিনিট। হালকা গরম জলে চুল ধুয়ে নিয়ে মোটা দাঁতের চিরুনি দিয়ে যত্ন করে আঁচড়ে নিন। কলার গন্ধ যদি ভাল না লাগে তা হলে সুন্দর গন্ধযুক্ত কোনও হালকা শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে নিন চুল।